নারী বৈশিষ্ট্য

নারী বৈশিষ্ট্য
মো.  নয়ন  মিয়া

নারী তুমি বচন বুঝ
তবে কেন মন বুঝনা?
নারী তুমি মিথ্যে মানো
কখনো কেন সত্য খুঁজনা।  
নারী তুমি ভালোলাগা ভালবাসো
ভালবাসার মূল্য দাও না।
চোখে দেখা অশ্রু মুছো
হৃদয়ের রক্তপ্রবাহ তোমায় নাড়েনা।

২০/০৯/২০১৪

Advertisements

গতি-মো. নয়ন মিয়া

গতি
মো. নয়ন মিয়া

পারবেনা কেউ রুখতে আমায়।
পারবেনা কেউ ধমাতে।
অদম্য এক গতি আমি,
জানা জগতটাকে।

স্বর্গবাসি যেই গতিতে,
পেরুই পুলসিরাত।
সেই গতিতে ছুটছি আমি,
সর্ব দিবারাত।

সিগন্যাল কোন মানিনা আমি,
জানা সকলেরে।
গতিরোধে সন্মুখে যাহা,
চুরমার করি তারে।

২০১৪ ইং

খেলা-মো. নয়ন মিয়া

খেলা
মো. নয়ন মিয়া

বানাইছো এক আজব প্রাণী
ধর্ম নাই, সরমও নাই
মজার খেলা খেলছো তুমি
পাষাণ যে নও তুমি
এইটা আমি অন্তরে মানি।

কি বানাইছো, কি জানি
মানুষ বলেই অমানুষ আমি
খেলছো তুমি, খেল তুমি
বল বলে নিজেকে জানি।

পাষাণ আমি, নও তুমি
পাপের বুঝা বইবো আমি
ঘাড়ে নিবে বিশ্বাস রাখি।
কি খেলাই নামালে তুমি,
বুঝার আগেই হারবো আমি?
আগে পরে তোমায় খুঁজি
হারতে হারতে জিতব জানি
বিজয় নিশান নেবই আমি।

২২/০৯/২০১৪ (02:22 AM)

কবিতাঃ আগুন জ্বলোক নিজের মতো-মো. নয়ন মিয়া

 আগুন জ্বলোক  নিজের মতো
মো. নয়ন মিয়া

জ্বলছে আগুন দাউ দাউ করে,
জ্বলতে দে তারে।
জ্বলক আগুন নিজের মতো,
জল দিসনা তারে।

আগুন জ্বলক, আগুন জ্বলক,
ভয় তর কিসে?
জলের অভাব বোধ করিবে,
আগুন নিজে নিজে।

আগুন শেষ করবে তার খেলা,
কোন এক বেলা।
খেলবি তুই নিজের মতো,
সকাল বিকাল একলা।

শূন্য হতে তুই ফলাবি সোনা,
আগুনের কাছে তার হারতে মানা।
পুড়তে সোনা চাইবে আগুন,
পুড়তে দিবি তারে।
আগুন স্বয়ং জানেনাতো,
সোনা খাঁটি হয় তার তাপে।

২০১৪ ইং

কবিতাঃ জ্যোৎস্না ভরা রাতে-মো. নয়ন মিয়া

জ্যোৎস্না ভরা রাতে
মো. নয়ন মিয়া

জ্যোৎস্না ভরা রাতে, একলা নিরবে
ভাবি তোমার কথা বন্ধু বারান্দাতে বসে।
শুনতে কি পাও তুমি, হৃদয়েরি কথা?
বুঝতে কি পার তুমি, আমার মনের ব্যথা?
তীব্র ব্যথায় ব্যথিত এই মন।
তীব্র ব্যথায় বিষন্ন এই মন।

বিশ্বটাকে ভূলে, তোমার কথাই ভাবি।
ভাবতে ভাবতে ভালবাসা বাড়ে।
ভূলে গিয়ে তুমি, ভালোই আছো জানি।
আমি ভালো থাকি কেমন করে?
ও, এই ভরা জ্যোৎস্নার রাতে
আমি ভালো থাকি কেমন করে?????

২০১৪ ইং

কবিতাঃ ইসলাম-মো. নয়ন মিয়া

ইসলাম
মো. নয়ন মিয়া

ইসলাম আমার ধর্ম কর্ম,
ইসলামি আমার সব।
ইসলামতেই দ্বীন দুনিয়া,
ইসলামেতেই রব।
ইসলামেই শান্তির বিরাজ,
ইতি নাই যার।
চলো ইসলামতেই যাই।

২০১৩ ইং

ঘুম ভাঙ্গানোর দণ্ড

ঘুম ভাঙ্গানোর দণ্ড

মো. নয়ন মিয়া

ঘুম ভেঙ্গেছে আমার হাজার বছর পরে।
ঘুমিয়ে ছিলাম এতদিন এই কার তরে?
ঘুমের পরতে পরতে ছিলাম মুক্ত জীবনানন্দ।
ঘুম কাটি হারায় সকল সুর ছন্দ।

কে করিল চুরি, কোন সেই ভণ্ড?
কি করে ঘটাল এই সর্বহারা কাণ্ড?
ধরিবই তারে আমি, দেব সেরা দণ্ড।
হতে হয় হবো জগত সেরা পাষণ্ড।

মুণ্ডু কাটিব তার, কোমল যদিও কণ্ঠ।
হবো সিমার করবোই দ্বিখন্ড।
করাতে কাটিব কুঠারে কুপাব,
দেব ঘুম ভাঙ্গানোর দণ্ড।

১১/০৭/২০১৪